বিশ্বনন্দিত ব্যক্তিত্ব হযরত মাওলানা ইলয়াস ছাহেব (রহ.) সম্পর্কে কোন মুসলমান জানেনা?

আল্লাহ তা’আলা তাবলীগ ও দীনের দাওয়াতের জযবা আগুনের মত তার সীনায় ভরে দিয়েছেন।যেখানেই বসতেন দীনের পয়গাম পৌঁছে দিতেন, দীনী আলােচনা করতেন।

কেউ তার একটি ঘটনা বর্ণনা করেন, এক ভদ্রলােক তার খেদমতে নিয়মিত আসত। অনেক দিন যাবত তার এ আসা-যাওয়া অব্যাহত থাকে। লােকটির দাড়ী ছিল না, কেটে ফেলতো।

বহুদিন ধরে ভদ্রলােকটি যাতায়াত করতে থাকলে এক পর্যায়ে হয়রত মাওলানা ইলিয়াস (রহ.) চিন্তা করলেন, সম্ভবত এখন তার সাথে গভীর সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। তাই একদিন হযরত ইলিয়াস ছাহেব (রহ.) তাকে বললেন ভাই সাহেব! আমার দিলে চায় আপনি দাড়ীর সুন্নতের আমল শুরু করুন।

ভদ্রলােক হযরতের উক্ত প্রস্তাবে কিছুটা লজ্জাবােধ করল। পরের দিন থেকে ভদ্র লােকটি হযরতজীর দরবারে আসা ছেড়ে দিল।

হযরত মাওলানা ইলিয়াস (রহ.)-এর জন্য অনেক অনুতপ্ত হন, মানুষের কাছে বলাবলি করেন, হায়! আমার বড় ভুল হয়ে গেছে। হায়! আমি কাচা তাওয়াতে রুটি ছেকতে শুরু করেছি। তাওয়া গরম না হতেই তার উপর রুটি রেখেছি।

এখন আসা-ই ছেড়ে দিয়েছে। যদি আসা-যাওয়া ঠিক রাখতাে তবে কমপক্ষে দীনের কথাবার্তা তার কানে পৌছতাে, ভাল কথা শুনলে তার উপকার হতাে।

ঘটনাটি মাওলানা তাকি উসমানী সাহেব (দাঃ) এর হৃদয় ছোঁয়া গল্প বই থেকে সংগৃহীত।

দ্বীনি কথা শেয়ার করে আপনিও ইসলাম প্রচারে অংশগ্রহণ করুন।